deshbangla71news.com
  • Home
  • রাজনীতি
  • বিয়ানীবাজারে শুকুর, গোলাপগঞ্জে এলিম নৌকার প্রার্থী
রাজনীতি

বিয়ানীবাজারে শুকুর, গোলাপগঞ্জে এলিম নৌকার প্রার্থী


নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

প্রবাসী অধ্যুষিত অঞ্চল গোলাপগঞ্জ-বিয়ানীবাজার। সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপির নির্বাচনী এলাকায় বৃত্তশালীদের আধিক্য বেশি।এ দুই অঞ্চলে নির্বাচন মানে সেয়ানে সেয়ানে টক্কর।

আগামী ১৫ জুন বিয়ানীবাজার পৌরসভায় দ্বিতীয়বারের মতো নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

 

একই তারিখে গোলাপগঞ্জ উপজেলায় উপ-নির্বাচন। তাই নির্বাচন ঘিরে অন্য দলের প্রার্থীদের ছাপিয়ে আলোচনায় ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীরা।

পৌর মেয়র ও উপজেলা চেয়ারম্যান হতে ডজন ডজন প্রার্থী নৌকা চেয়ে বসেন।

অবশেষে শুক্রবার (১৩ মে) আওয়ামী লীগের মনোয়ন বোর্ডের সভায় বিয়ানীবাজার পৌরসভায় বর্তমান মেয়র আব্দুস শুকুরকে নৌকা প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়।

 

আর গোলাপগঞ্জে প্রয়াত উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইকবাল আহমদ চৌধুরীর সহোদর মঞ্জুর শাফি চৌধুরী এলিমকে নৌকার প্রার্থী করা হয়েছে।

দলীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে আওয়ামী লীগের ‘স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ড’র সভা অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৈঠকে অংশ নেন বোর্ডের সদস্য ও আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ ও রাশিদুল আলম, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, প্রেসিডিয়াম সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, কাজী জাফরুল্লাহ, লেফটেনেন্ট কর্নেল (অব.) ফারুক খান, আব্দুর রাজ্জাক, জাহাঙ্গীর কবির নানক ও আব্দুর রহমান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ।

 

সভায় সিলেটের বিয়ানীবাজার পৌরসভায় মেয়র পদে আব্দুস শুকুরকে ও গোলাপগঞ্জ উপজেলায় সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রয়াত ইকবাল আহমদ চৌধুরীর সহোদর মঞ্জুর শাফি চৌধুরী এলিমকে নৌকার প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়।

 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিয়ানীবাজারে পৌরসভায় দ্বিতীয়বারের মতো অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচন ঘিরে অন্তত ডজন খানেক প্রার্থী নৌকা চেয়ে বসেন। তারা তফসিল ঘোষণার আগে থেকে নানাভাবে নিজেদের অবস্থান জানান দিয়ে আসছিলেন। পৌর মেয়র হতে দেশি প্রার্থীদের সঙ্গে টক্কর দিতে মাঠে নামেন ক্ষমতাসীন দলের প্রবাসী নেতারাও। সবার একটাই প্রত্যাশা দলীয় প্রতীক নৌকা। এরইমধ্যে অনেকে লবিং-তদবির করলেও অবশেষে আব্দুস শুকুরেই ভরসা করেছে আওয়ামী লীগ।

 

এ পৌরসভায় মেয়র পদে প্রার্থী তালিকায় বর্তমান মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুস শুকুর ছাড়াও রয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও জেলার সদস্য আব্দুল হাসিব মনিয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী আব্দুল কুদ্দুস টিটু, বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ফারুকুল হক, কানাডা্ প্রবাসী সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আহবাব হোসেন সাজু, সাবেক পৌর প্রশাসক মো. তফজ্জুল হোসেন, সদর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মাসুক আহমদ। আর স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে আসতে পারেন পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি আবু নাসের পিন্টু, সিপিব’র উপজেলা সভাপতি অ্যাডভোকেট আবুল কাশেম ও প্রভাষক আব্দুস সামাদ আজাদ।

 

এদিকে সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনে নৌকার চূড়ান্ত মনোনয়ন পেয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মঞ্জুর শাফি চৌধুরী এলিম। তিনি গোলাপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের টানা দু’বারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইকবাল আহমদ চৌধুরীর ছোট ভাই। এলিম ছাড়াও এ উপজেলা থেকে আওয়ামী লীগের দলীয় ফোরামে মনোনয়ন চেয়েছিলেন আরও অনেকে। তারা হলেন- সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, সাবেক উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান হুমায়ুন ইসলাম কামাল, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান লুৎফুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক রফিক আহমদ, গোলাপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান, যুব মহিলালীগ নেত্রী নাজিরা বেগম শীলা, জেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী কমিটির সদস্য সৈয়দ মিসবাহ উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য শাহিদুর রহমান চৌধুরী জাবেদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক আকবর আলী ফখর, তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক ফরহাদ আহমদ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আব্দুল ওহাব জোয়ারদার মওসুফ। তবে শেষ পর্যন্ত তাদের নিরাশ থাকতে হয়।

 

দলীয় সূত্র জানায়, নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগ প্রার্থী নির্ধারণ করলেও বিদ্রোহীরা কতটুকু ছাড় দেবেন এখন তা দেখার বিষয়। কেননা বরাবর নৌকার বিদ্রোহীরা পরে আওয়ামী লীগে ভালো অবস্থানে যায়। যে কারণে দল মনোনীত প্রার্থীর বিরুদ্ধে নির্বাচন করতে বিদ্রোহীরা সাহস দেখান। এবারও এর পুনরাবৃত্তি হতে পারে।

 

নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, সিলেটের বিয়ানীবাজার পৌরসভা নির্বাচন ও গোলাপগঞ্জ উপজেলা পরিষদে উপ-নির্বাচনে ভোটগ্রহণ হবে আগামী ১৫ জুন। তফসিল অনুযায়ী রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়ন দাখিলের শেষ তারিখ ১৭ মে, রিটার্নিং কর্মকর্তা কর্তৃক মনোনয়ন বাছাই ১৯ মে, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২৬ মে। এরপর ১৫ জুন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে বিয়ানীবাজার পৌরসভার নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।


Related posts

মামুনুল হকের পক্ষ নেওয়ায় পদ হারাতে হয় এক ছাত্রলীগ নেতার

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিএনপি নেতা মকবুলের ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

Kazi MD Sazzad Hasan

শেখ হাসিনার নেতৃত্বের আলোয় বাংলাদেশ আলোকিত: ওবায়দুল কাদের

Kazi MD Sazzad Hasan

জাতীয় চার নেতা হত্যার পেছনে অনেক মোটিভ ছিল : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

deshbangla71news.com

যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে পরশ সপরিবারে করোনা আক্রান্ত

Kazi MD Sazzad Hasan

জননেত্রী শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা জানিয়ে সরকারি কমার্স কলেজ ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটির আনন্দ শোভাযাত্রা

Kazi MD Sazzad Hasan