deshbangla71news.com
খেলাধুলা

স্পিনারদের দাপটে উড়ে গেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ


ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও শ্রীলংকা মধ্যকার সিরিজের দ্বিতীয় টি-টুয়েন্টি ম্যাচে এন্টিগুয়ার কুলিজেড ক্রিকেট গ্রাউন্ডে মুখোমুখি হয়েছিল দুদল। যেখানে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে ২০ ওভারে ৬ উইকেটের বিনিময়ে ১৬০ রান করে সফরকারী শ্রীলংকা।

ইনিংসের শুরু থেকেই ব্যাটিং দাপটে এগিয়ে ছিল লঙ্কান শিবির। ওপেনার ধানুশকা গুনেতিলাকা এবং পাতুম নিশানকা করেন ৯৫ রানের দারুণ এক জুটি।

এরপর ৯৫ রানের মাথায় ডোয়েন ব্রাভোর অসাধারণ স্টাম থ্রোতে রানআউট হয়ে যায় নিশানকা। ভেঙে যায় ৯৫ রানের জুটি। একই ওভারে ৯৬ রানের মাথায় আউন হয়ে যায় ধানুশকা গুনাতিলাকা। এরপর একে একে ফিরতে থাকেন চান্দিমাল, ম্যাথিউস, থিসারা পেরেরা।

দলের যখন ১২৯ রানে ৬ উইকেট চলে যায় ঠিক তখনই ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেয় অ্যাশেন বান্দেরা এবং ওয়ানিনদু হাসারাঙ্গা। ১৮ বলে ২৫ রানের জুটি করে এই দুই জন।

১৬০ রানে সমাপ্তি ঘটে সফরকারীদের ইনিংস। শ্রীলংকার হয় সর্বোচ্চ ৫৬ রান করেন ধানুশকা গুনেতিলাকা। ৪ চার ও ২ টি ছক্কা যুক্ত ছিল তার ইনিংসে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ২ টি উইকেট শিকার করেন ডোয়েন ব্রাভো। জেসন হোল্ডার এবং ওবেদ ম্যাকয় নেন ১ টি করে উইকেট।

এরপর ১৬১ রানের তাড়া করতে নেমে শুরুতেই হোটচ খায় স্বাগতিকরা। দলীয় ৯ রানে আকিলা ধনঞ্জয়ার বিধ্বংসী স্পিন ঘূণিতে এলবিডব্লিউ হয়ে পেভিলিয়নে ফিরেন ওপেনার এভিন লুইস। অভিজ্ঞ ক্রিস গেইল এবং লেন্ডেল সিমন্স করেন ৩৫ রানের জুটি। দলীয় ৪৫ রানে বিদায় নেন ইউনিভার্স বস ক্রিস গেইল। এরপর একে একে পতন হতে থাকে স্বাগতিকদের ইনিংসে।

লঙ্কান স্পিন তান্ডবে মাত্র ১১৭ রানে গুটিয়ে যায় স্বাগতিকরা।
ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে সর্বোচ্চ ২৩ রান করেন ওবেদ ম্যাকয়।
শ্রীলংকার হয়ে ৩ টি করে উইকেট নেন লক্ষ্মণ সান্দাকান এবং ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গ। ২ টি উইকেট শিকার করেন পেসার দুশমন্তা চামিরা। ধানুশকা গুনেতিলাকা এবং আকিলা ধনঞ্জয়া নেন ১ টি করে উইকেট।

অসাধারণ অলরাউন্ডার পারফরম্যান্স দিয়ে দ্বিতীয় টি-টুয়ান্টির ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ নির্বাচিত হয়েছেন ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা।

আগামী ৭ই মার্চ এন্টিগুয়ায় শেষ এবং সিরিজ জয়ের লড়াইয়ে মাটে নামবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং শ্রীলংকা।


Related posts

বিশ্বকাপ আয়োজন করতে চায় ইংল্যান্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশের ‘ডাল-ভাত’ পছন্দ আমিরের

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনা পজিটিভ লিটল মাস্টার শচীন টেন্ডুলকারের

নিজস্ব প্রতিবেদক